Home Company News & Events
কোডারট্রাস্টের লার্ন অ্যান্ড আর্ন প্রোগ্রামের উদ্বোধন
Wednesday, 18 February 2015 22:20

ঢাকা: শুরু হয়েছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান কোডারট্রাস্ট বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিটি) ‘লার্ন অ্যান্ড আর্ন প্রোগ্রাম

 

ডেফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (ডিআইইউ) সহযোগিতায় বুধবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর সোবহানবাগের একটি রেস্টুরেন্টে প্রোগ্রামের উদ্বোধন করা হয়

 

কোডারট্রাস্ট বাংলাদেশের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বোর্ড মেম্বার আজিজ আহমেদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

 

অনুষ্ঠানে কোডারট্রাস্টের মিশন ভিশন তুলে ধরে এবং কার্যক্রমের প্রক্রিয়া বর্ণনা করেন প্রতিষ্ঠানের বোর্ড চেয়ারম্যান জ্যান-কায়ো ফিয়েবিগ

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি বয়স, লিঙ্গ, শ্রেণী-পেশা নির্বিশেষে সকলেরই উচিত অর্থনৈতিকভাবে নিজেদের ক্ষমতাশালী করা কোডারট্রাস্ট বাংলাদেশের শিক্ষিত বেকার তারুণ্যকে জীবন বদলে দেওয়ার মতো একটি সমাধান দিচ্ছে

 

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক তার বক্তৃতায় কোডার ট্রাস্ট, তার স্থানীয় অংশীদার ডিআইউ ব্যাংক এশিয়াকে কৃতজ্ঞতা জানান

 

তিনি প্রোগ্রামে অংশগ্রহণকারীদের কোড শিখতে, কোড ভাবতে এবং একজন কোডার হয়ে বাঁচার উৎসাহ দেন

 

প্রতিমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা আর্থিক স্বাধীনতা লাভ করবে, পরিবারকে সহযোগিতা করতে পারবে এবং তাদের জনপদে একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে উপস্থাপিত হবে

 

কোডারট্রাস্টের এই কার্যক্রমে সহযোগিতার জন্য ডানিডাকেও ধন্যবাদ জানান জুনাইদ আহমেদ পলক

 

কোডারট্রাস্টের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বোর্ড সদস্য আজিজ আহমদ বলেন, লার্ন অ্যান্ড আর্ন-এর এই প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে তিনি বলেন, এটি একটি সুযোগ আমরা এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে পারবো তবে একই সঙ্গে প্রতিটি মানুষ তার নিজের পরিবারের উন্নয়নও নিশ্চিত করতে পারবে

 

ডিসিসিআই সভাপতি হোসেন খালেদ তরুণদের প্রত্যেককে একেকজন চাকুরিজীবী না হয়ে উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে বলেন তিনি বলেন, আপনারাই ভবিষ্যত আপনাদের হাতেই ভবিষ্যত নির্মিত হবে

অনুষ্ঠানে ডিআইইউ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর . লুৎফর রহমানও বক্তব্য রাখেন শিগগির ডিআইইউতেকোডারট্রাস্ট ডিআইইউ লার্ন অ্যান্ড আর্ন সেন্টারচালু করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন

 

ড্যানিশ কোম্পানি কোডারট্রাস্ট প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে ঠিক একই প্রোগ্রাম ভারত, ইন্দোনেশিয়া, নাইজেরিয়া, কেনিয়া, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনাসহ বিভিন্ন দেশে পরিচানা করছে প্রতিষ্ঠানটি এছাড়া, প্রতিষ্ঠানটি সুবিধাবঞ্চিত নাগরিক নারীদের জন্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়সহ ইউএনডিপি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এ২আই, তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রমে সহযোগিতা করে যাচ্ছে